কুয়েটে হয়ে গেলো দেশের অন্যতম বড় টেকনিকাল ইভেন্ট ‘Technival 2018’ Powered By ইয়ুথ কার্নিভাল

0
1567

Image may contain: 8 people, people standing

খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ই,সি,ই বিভাগের ছাত্রদের আয়োজনে এবং Manipulators of Electronics Club (MEC) এর সহযোগিতায় গত ২০ এবং ২১ তারিখ অনুষ্ঠিত হয়ে গেল প্রযুক্তি ভিত্তিক সারা দেশের অন্যতম বড় ইভেন্ট ‘Technival 2018’। ২ লক্ষ ৮৪ হাজার টাকার প্রাইজমানির এই প্রোগ্রামটি যে উক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসের অন্যতম বড় ইভেন্ট তা সহজেই অনুমেয়। শুধু প্রাইজমানিই নয়, বরং এই অনুষ্ঠানকে সফল বলা চলে আয়োজকদের আন্তরিকতা, প্রতিযোগীদের ব্যাপক সাড়া এবং সর্বোপরি দেশ জুড়ে সব মেধাবীদের এক মিলনমেলার সুযোগ করে দেয়ার জন্য।

Image may contain: 6 people, people smiling, people standing

Technival 2018’ তে শুধু ভার্সিটি পড়ুয়া রোবোট প্রেমীরাই না, বরং স্কুল কলেজের টেক ফ্রিকরাও অংশ নেয়। আয়োজকদের সহযোগীতায় স্কুল কলেজের ছাত্রদের জন্য ‘জ্ঞ্যান jam’ এর পক্ষ থেকে আয়োজন করা হয় একটি ওয়ার্কশপ, যা ১১টি সেগমেন্ট এর এই মেগা ইভেন্টে নিশ্চিতভাবে এক নতুন মাত্রা যোগ করেছে। এখানে অংশগ্রহণ করে ৮৫০ জন শিক্ষার্থী যার মধ্যে ২২ টি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অংশগ্রহণ করে ৪৭০ জন শিক্ষার্থী এবং বিভিন্ন স্কুল থেকে অংশগ্রহণ করে ১৬৮ শিক্ষার্থী। দারুণ আকর্ষনীয় ইভেন্ট ‘ব্যাটল অফ বোটস’ চলাকালীন প্রচুর দর্শকই অনুষ্ঠানের গুরুত্বের নির্ধারক। আর গেমিং সেগমেন্টস এর CS:GO, COD4 এবং Fifa18 এর উত্তেজনাপূর্ণ প্রতিযোগিতাগুলো ছিল উপভোগ করার মত। poster presentation এবং project showcasing এ শিক্ষার্থীরা তুলে ধরেছিল বর্তমান সময়ের সমস্যাগুলোর সমাধানের অভিনব উপায় এবং তাদের উদ্ভাবনী ক্ষমতাকে। রুবিকস কিউব প্রতিযোগিতায় প্রতিযোগিরা তাদের দক্ষতাকে তুলে ধরেছিল সুনিপুণভাবে।

Image may contain: 6 people, people smiling, people standing

বিশাল প্রাইজমানির এই প্রোগ্রামের Title Sponsor ছিল দেশের সর্ববৃহৎ ও আন্তর্জাতিক খ্যাতিসপন্ন ইয়ুথ সংগঠন ‘ইউথ কার্নিভাল’। তাদের সর্বোপরি সহযোগিতার ফলাফলে এই ইভেন্টটি সফল ভাবে আয়োজিত হয়। এছাড়াও University Grant Commission of Bangladesh (UGC), পোলার আইসক্রিম, গ্রামীণফোন সহ নানান স্পন্সরের এগিয়ে আসাতে ইভেন্টটির মাত্রা আরো বৃদ্ধি পায়।

 

Image may contain: 5 people

ই,সি,ই বিভাগের সকল ছাত্রদের পাশাপাশি শিক্ষকরাও এগিয়ে আসার মাধ্যমে ইভেন্টটি সফলভাবে পরিচালিত হয়। উক্ত বিভাগের শিক্ষক প্রফেসর ডঃ ফারুক হোসেন এই প্রোগ্রামের কনভেনর হিসেবে ভূমিকা রাখেন। তিনি মনে করেন এমন আরো ইভেন্টই পারে শিক্ষার্থীদের মেধা শানিত করতে।

Image may contain: 6 people, people smiling, people standing

২০ শে এপ্রিল সকাল ৯টায় শুরু হয় এবং পায়রা উড়িয়ে শুভ উদ্ভোধন ঘটে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ডঃ মুহম্মদ আলমগীর স্যারের মাধ্যমে।

Image may contain: 5 people, people smiling

একঝাঁক বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের উপস্থিতিতে মুহূর্তেই রং বদলে যায় অনুষ্ঠানের। একে একে প্রথমদিন ৫ টি সেগমেন্ট শেষ হয়। পরেরদিন বাকি ৬টি সেগমেন্ট সমাপ্তির পর শুরু হয় ইভেন্টের সমাপনী ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান। রাত ৮:৩০ এ সকল বিজয়ীদের হাতে পুরষ্কার তুলে দিয়ে ইভেন্টির সমাপ্তি ঘটে।

Image may contain: 6 people

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here